বিশ্বাসই সম্পর্কের আসল ভিত্তি

395

১. আমি একজন গৃহবধূ। আমার তিন বছর হল বিয়ে হয়েছে। কিন্তু, এখনও আমার স্বামীকে মন থেকে মেনে নিতে পারিনি। আমাদের সম্পর্কটা শুধুই শারীরিক।এখন আমার কি করা উচিৎ?

একটা সম্পর্ক সুন্দরভাবে তৈরি করতে গেলে অনেক মেহনত করতে হয়। তবে অ্যারেঞ্জ ম্যারেজের ক্ষেত্রে একজন অচেনা মানুষকে মানিয়ে বনিতে অনেকেরই অসুবিধা হয়। ধৈর্য আর ইচ্ছাশক্তিই পারে এই সম্পর্ককে মজবুত করতে। যদি আপনার স্বামীর সঙ্গে সব সমস্যা নিয়ে আলোচনা করতে পারেন, তাহলেই সমাধান সম্ভব। আপনার নিরাপত্তাহীনতার কারণগুলো তাঁকে বুঝতে দিন। যদি দুজনে মিলে সমাধান করেন, তাহলে সেটা অনেক সহজ হবে। এক্ষেত্রে আপনি চাইলে মনোবিদের সাহায্য নিতে পারেন।

২. আমার স্বামী আমাকে খুবই ভালবাসেন। কিন্তু, সম্প্রতি উনি ওনার প্রাক্তন প্রেমিকের সঙ্গে কথা বলা শুরু করেছেন। আমি আমার স্বামীকে সন্দেহ করি না কিন্তু প্রাক্তন প্রেমিকাকে আমার খুব একটা সুবিধের বলে মনে হয় না। আমার সবসময় মনে হয় ও আমার স্বামীকে আমার থেকে দূরে নিয়ে চলে যাবে। আমার কি কর্তব্য?

বিশ্বাস যে কোনও সম্পর্কের ভিত্তি। সম্পর্কের বাইরে এমন কোনও পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে যা সম্পর্ককে শেষ করে দিতে পারে। কিন্তু, সেই পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসাই বিশ্বাসের পরিচয় দেওয়া। নিজেকে জিজ্ঞাসা করুন, সত্যিই কি নিরাপত্তাহীনতায় ভোগার কোনও কারণ আছে কি? নিজের উপর বিশ্বাস করুন। দিনের শেষে কোনও সম্পর্কেই কোনও গ্যারান্টি থাকে না। সম্পর্কে আসা এইসব বাধাগুলো কাটিয়ে উঠতে শিখুন। জীবনে যে পরিস্থিতিই আসুক তাকে সহ্য করার ও তার সঙ্গে লড়াই করার মত ক্ষমতা নিজের মধ্যে তৈরি করুন।

উত্তর দিয়েছেন ফর্টিস হাসপাতালের চিকিৎসক, মনোরোগ বিশেষজ্ঞ ডাঃ সঞ্জয় গর্গ

এই বিভাগে আপনাদের সমস্যার সমাধানে হাত বাড়িয়ে দেব আমরা৷ আপনাদের যা কিছু সমস্যা, যে কথা কাউকেই বলতে পারছেন না, সে কথা জানান আমাদের৷ আমরা বিশিষ্ট মনোবিদের থেকে তার উত্তর এনে পৌঁছে দেব আপনাদের কাছে৷ আপনাদের সমস্যা জানিয়ে মেইল করুন, desk.ekolkata24@gmail.com

মেইলের সাবজেক্টে নন্দিনী-বন্ধুতা কথাটি অবশ্যই উল্লেখ করবেন৷