চুল বাঁধার নানা ধরন

1429

‘এলাইয়া বেণি, ফুলের গাঁথনি…’ উন্মনা রাধার বর্ণনা পদাবলী ভেসে যায়ষ কিন্তু এই ব্যস্ত সময়ে চুল খোলা রাখার বিলাসিতা কোথায়৷ আবার একটু এলোমেলো চুলে আপনার সৌন্দর্য যেভাবে ফুটে ওঠে, তাই বা অন্য কোন উপায়ে মেলে৷ শুধুমাত্র চুল বাঁধার রকমফেরেই আপনি নিজেকে করে তুলতে পারেন অপরূপা৷ তবে সব পোশাকের সঙ্গে আবার সব হেয়ার স্টাইল মানায় না৷ এখানে থাকল কিছু মনপসন্দ হেয়ার স্টাইলের খোঁজ,যা কখনই আউট অফ ফ্যাশন হবে না৷braid 2

১. একটু এলোমেলো করে চুলের বাঁধন বেশ মানায় ট্রেন্ডি ড্রেসের সঙ্গে৷ প্রথমে চুলের সামনের অংশের কিছুটা ছেড়ে দিয়ে কিছুটা অংশকে নিয়ে একটু ফুলিয়ে ক্লিপ দিয়ে আটকে ফেলুন৷ তারপরে পিছনের চুল দিয়ে বিনুনি করে পুরোটাকে একপাশে এনে ক্লিপ লাগান যাতে সেই একপাশেই থাকে আপনার বিনুনিটি৷ এবার একটি লম্বা রিবন দিয়ে মাথার উপর থেকে বাঁধুন৷ এবার ওই ফিতে ব্যবহার করেই বিনুনিটির শেষ অংশ বেঁধে নিন হাল্কা করে৷ বাকি চুল ছেড়ে রাখুন৷ মাথায় ড্রেসের সঙ্গে মানানসই কিছু ক্লিপ আটকে দিন৷ আপনার পার্টি ওয়্যারের সঙ্গে এই ক্রেজি লুক বেশ মানাবে আপনাকে৷undone braid 4

২. দুটি আলাদা বিনুনি করেও আপনি ট্রেন্ডি লুক বানাতে পারেন৷ এটি দেখলে খুব কঠিন মনে হলেও আপনি নিজেই খুব সহজে বেঁধে ফেলতে পারবেন আপনার চুল৷ চুলের এক দিকের কিছুটা করে অংশ নিয়ে দুটি আলাদা আলাদা পাশাপাশি বিনুনি করুন৷ এবার পরপর ওই দুটি বিনুনিকে মাথার একদিক থেকে অন্য দিকে নিজের ইচ্ছা মতো সাজান৷ বাকি চুল ছেড়ে দিন৷ মাথায় সুন্দর ক্লিপ লাগান৷ গরমের সময় আপনার সাজকে আরও মিষ্টি করে তুলবে৷

braids1৩. ফিস টেল পুরনো হেয়ার স্টাইল৷ কিন্তু এই ফিস টেল ব্যবহার করে আপনি নতুন স্টাইল করতেই পারেন৷ প্রথমে পুরো চুল নিয়ে একটি হর্স টেল বাঁধুন৷ এবার ওই হর্স টেলে একটি ফিস টেল বানান৷ তারপরে ওই ফিস টেলকে গোল করে ঘুরিয়ে বেঁধে ফেলুন অথবা ছেড়ে রাখুন৷ এতে আপনার চুলের স্টাইল বেশ অন্যরকম হবে৷

৪. ক্যাজুয়াল লুকের জন্য একটি হালকা এলোমেলো বিনুনি আপনার জন্য পারফেক্ট৷ চুলের সামনের কিছুটা অংশ ছেড়ে পিছনের অংশ নিয়ে একটি ঢিলে বিনুনি করুন৷ এবং সামনের অংশে হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার করে ছেড়ে দিন৷ সব থেকে সহজ অথচ ট্রেন্ডি চুল বাঁধার ধরন এটি৷