শীতের মাথাব্যথা ফাটা গোড়ালির সমস্যা

50

ফাটা গোড়ালির সমস্যা৷ স্টাইলিশ জুতো তো পরাই যায় না, তার সঙ্গে থাকে ব্যাথা, রক্ত পড়ার মতো সমস্যা৷ এই পরিস্থিতিতে কী করবেন?

পা পরিষ্কার রাখার চেষ্টা করুন সব সময়৷ বাড়িতে খালি পায়ে না থেকে স্লিপার পরে থাকুন৷ প্রতিদিন স্নানের সময়ে ঝামা পাথর বা ফুট ফাইল দিয়ে পা ঘষে নেবেন৷ স্নানের পর আপনি গোটা শরীরে মাখেন ময়েশ্চরাইজ়ার, শ্যাম্পু করার পর চুলে দেন কন্ডিশনার৷ কিন্তু গোড়ালির জন্য কী করেন?

স্নানের পর ও রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে পা পরিষ্কার করে নিয়ে কোনও ফুট ক্রিম লাগান৷ মাঝে মাঝে ব্যবহার করুন স্ক্রাবার৷ আর নিয়ম করে পেডিকিওর করাতে পারলে তো কোনও কথাই নেই!

ব্যবহার করতে পারেন:
পেট্রোলিয়াম জেলি: রাতে শুতে যাওয়ার আগে গরম জলভরা পাত্রে আধ ঘণ্টা পা ডুবিয়ে রাখুন৷ তারপর ঝামা দিয়ে পা ঘষে তুলে ফেলুন যাবতীয় মৃত কোষ৷ পা শুকনো হতে দিন স্বাভাবিকভাবে, ঘষে ঘষে মুছবেন না৷ এবার পেট্রোলিয়াম জেলির মোটা পরত লাগিয়ে একটু পুরনো ও আলগা হয়ে যাওয়া মোজা পরে নিন পায়ে৷
নারকেল তেল আর মোম: একটি পাত্রে নারকেল তেল আর মোম নিয়ে ততক্ষণ গরম করুন যতক্ষণ না মোম গলে যায়৷ মিশ্রণটি ঠান্ডা করুন৷ আগের পদ্ধতিতেই পায়ের মৃত কোষ পরিষ্কার করে নিন৷ তারপর ফাটা গোড়ালিতে এই মিশ্রণ লাগিয়ে মোজা পরে শুতে যান৷ পরদিন সকালের আগে যেন পায়ে জল না লাগে৷

ব্যবহার করতে পারেন এই প্যাকগুলি:
দুধ আর ওটমিল পাউডারের মাস্ক: ২-৩  টেবিলচামচ ওটমিল গুঁড়ো করে নিন ব্লেন্ডারে৷ তার পর ঠান্ডা দুধের সঙ্গে এই গুঁড়ো মিশিয়ে একটা ঘন প্যাক তৈরি করুন৷ ফাটা গোড়ালিতে লাগিয়ে আধ ঘণ্টা রাখুন৷ ধুয়ে পেট্রোলিয়াম জেলি লাগিয়ে নিন৷ সপ্তাহে একবার এই প্যাক লাগান৷
লেবু, ডিমের কুসুম আর চালের গুঁড়োর প্যাক: এক চা চামচ চালের গুঁড়ো, এক টেবিলচামচ লেবুর রস আর একটা ডিমের কুসুম একসঙ্গে মিশিয়ে নিন৷ প্যাকটা পায়ে লাগিয়ে ২০ মিনিট রাখুন৷ তার পর ঠান্ডা জলে ধুয়ে ফেলুন৷ প্রতিদিন করলে ভালো ফল পাবেন৷